• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর: আঞ্চলিক ভূ-রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে ফিলিস্তিনসহ দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ

বরগুনায় ২২০ কেজি হরিণের মাংস উদ্ধার, আটক ৩

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৯ এপ্রিল ২০২৪  

বরগুনায় ২২০ কেজি হরিণের মাংসসহ তিনজনকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। সোমবার (০৮ এপ্রিল) জেলার পাথরঘাটা উপজেলায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। পাথরঘাটা কোস্টগার্ড কন্টিনজেন্ট কমান্ডার এম ফিরোজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, সোমবার (৮ এপ্রিল) সকালে উপজেলার হরিনঘাটা ইকোপার্ক এলাকার বিষখালী কোস্টগার্ডের বিশেষ অভিযান চালিয়ে নদীতে একটি ইঞ্জিনচালিত একটি ট্রলার থেকে তাদের আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে তিনটি হরিণের মাথা ও ২২০ কেজি মাংস উদ্ধার করা হয়। পরে উদ্ধারকৃত মাংস ও হরিণের মাথাসহ আটকৃতদের পাথরঘাটা বন বিভাগে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আটকরা হলেন পাথরঘাটা উপজেলার চরদুয়ানী তাফালবাড়িয়ার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের আলী হোসেনের ছেলে আফজাল হোসেন (৪৫), আব্দুল হকের ছেলে হারুন (৩৫), আব্দুল করিম হাওলাদারের ছেলে আব্দুল মান্নান (৫৫)।

আটক আফজাল হোসেন জানান, গত পাঁচদিন আগে পাথরঘাটার বলেশ্বর নদীতে মাছ শিকারের জন্য বের হন তারা। পরপর দুদিন মাছ না পেয়ে মাঝি আবুল বাশারের নির্দেশে সুন্দরবন প্রবেশ করে হরিণ শিকার করে তারা। সেখান থেকে দশটি হরিণ শিকার করে মাংস নিয়ে সোমবার সকালে বিষখালি নদী হয়ে পাথরঘাটার দিকে আসেন তারা। পরে কোষ্টগার্ডের ধাওয়া খেয়ে রশিদ শিকদারের ছেলে আবুল বাসার মাঝি ও সাহাদাত হোসেন পালিয়ে যায়।

পাথরঘাটা বিসিজি কন্টিজেন্ট কমান্ডার ফিরোজ্জামান জানান, পাচার করার উদ্দেশ্যে একটি চক্র ট্রলারযোগে সুন্দরবন থেকে হরিণের মাংস নিয়ে বিষখালি নদী দিয়ে পাথরঘাটায় আসছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষখালী নদীতে অবস্থান নেন তারা। সকাল ১০টার দিকে চোরাকারবারীরা কোস্ট গার্ড সদস্যদের দেখে দ্রুতগতিতে পালিয়ে যাওয়ার জন্য চেষ্টা করে। পরে ধাওয়া করে হরিণঘাটা ইকোপার্কের দক্ষিণে বিষখালী নদী থেকে তিনটি হরিণের মাথা ও ২২০ কেজি মাংসসহ তাদের আটক করা হয়। এ সময় সাথে থাকা আরো দুজন কৌশলে পালিয়ে যায়।

হরিণঘাটা বনবিভাগের বিট কর্মকর্তা আব্দুল হাই জানান, উদ্ধার হওয়া তিনটি মাথা ও ২২০ কেজি হরিণের মাংস বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মাংসগুলো বিকেল পাঁচটায় আদালতের নির্দেশে মাটি চাপা দেয়া হয়েছে। এছাড়াও আটককৃতদের বিরুদ্ধে বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনে মামলা দিয়ে পাথরঘাটা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

বরগুনার আলো